• বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:০১ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জামালপুরের জেলা প্রশাসকের সঙ্গে নারী সহকর্মীর ভিডিও ভাইরাল

রিপোর্টার
আপডেট : শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯
jamalpur dc 20190823191048

জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের সাথে এক নারীর ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

জানা গেছে, জেলা প্রশাসকের অফিস কক্ষে এই ভিডিও ধারণ করা হয়েছে। ভিডিওতে জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের সঙ্গে ডিসি অফিসে সদ্য নিয়োগ পাওয়া অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনাকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে জেলা সার্কিট হাউজে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ওই ভিডিওটি সাজানো বলে দাবি করেছেন জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর।

৪ মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা ২৬ ফেব্রুয়ারি ও ৩ আগস্টের ফুটেজ। জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের অফিস কক্ষে তার চেয়ারের ঠিক ডান পাশে রয়েছে ছোট্ট একটি কক্ষ। কক্ষটিতে রয়েছে শোবার একটি খাট। বেশ পরিপাটি ওই কক্ষে আহমেদ কবীরের সঙ্গে দেখা যাচ্ছে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমেই সম্প্রতি নিয়োগ পাওয়া একই অফিসের অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনাকে।

সম্প্রতি ভিডিওটি কেউ একজন ফেসবুক পোস্ট করেন। তারপর এটি ফেসবুকে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

ভিডিও সম্পর্কে শুক্রবার দুপুরে জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমি মানসিকভাবে খুবই বিপর্যস্ত অবস্থায় আছি। আপনারা আমাকে একটু সময় দেবেন। প্রকৃত ঘটনা জানতে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আপনারা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।’

ভিডিওটির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটি একটি সাজানো ভিডিও। একটি হ্যাকার গ্রুপ দীর্ঘদিন ধরে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আমাকে ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করছিল। আমি বিষয়টি গুরুত্ব দেইনি। বানোয়াট ভিডিওটি একটি ফেক আইডি থেকে পোস্ট দেয়া হয়।’

তবে ভিডিওটিতে দেখানো কক্ষটি তার অফিসের বিশ্রাম নেয়ার কক্ষ এবং ভিডিওর ওই নারী তার কার্যালয়ে অফিস সহায়ক হিসেবে কর্মরত বলে জেলা প্রশাসক নিশ্চিত করেন। এ সময় জেলা প্রশাসক সাংবাদিকদের এ বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন না করার জন্য অনুরোধ করেন।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, আহমেদ কবীর জামালপুরে জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন ২০১৭ সালের ২৭ মে। যোগদানের কিছুদিন পর থেকেই তিনি তার অফিসের কক্ষের পাশে ছোট্ট একটি কক্ষে ধূমপান ও ব্যক্তিগত সরকারি গোপনীয় বৈঠকের জন্য কক্ষটি ব্যবহার করে আসছেন। সম্প্রতি ওই কক্ষে বিশ্রাম নেয়ার জন্য একটি খাট বসানো হয়েছে। তাতে বিশ্রাম নেয়ার মতো বালিশ, চাদর সবকিছুই আছে। সম্প্রতি ওই কক্ষে একাধিক নারীর যাতায়াতকে কেন্দ্র করে গোটা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত ওই কক্ষে একজন নারীর সাথে জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের অবৈধ মেলামেশার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ায় আগের গুঞ্জনের সত্যতা পাওয়া গেল।

 

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা