মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

কমে আসছে শীতের আমেজ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৩১

বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রা। গত সপ্তাহের তুলনায় এখন দিনের তাপমাত্রা প্রায় তিন থেকে চার ডিগ্রি বেশি। ফলে কমতে শুরু করেছে কনকনে শীতের আমেজ। চলতি সপ্তাহে তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও আগের মতো আর সেই কনকনে শীত পড়বে না বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

তবে দিনের এই ঊষ্ণতা আগামী মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) থেকে আরেকটু কমতে পারে। যদিও তা কনকনে শীতের অনুভূতি সৃষ্টি মতো নাও হতে পারে। বিশেষ করে ঢাকায় আর সেই কনকনে বাতাস বইবে না। তবে উত্তরাঞ্চলের কিছু কিছু অঞ্চল আবারও মৃদু শৈত্যপ্রবাহের শিকার হতে পারে বলে শংকা প্রকাশ করেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আসা কনকনে বাতাসের গতি কমে এসেছে। চলতি সপ্তাহের শেষে উত্তরাঞ্চলের দিকে কিছুটা বয়ে গেলেও তা অন্য এলাকাগুলোতে তেমন ছড়াবে না। ফলে শীতের অনুভূতি গত সপ্তাহের তুলনায় অনেক কমে যাবে।

গত সপ্তাহের শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পাবনার ঈশ্বরদীতে ১০ দশমিক ২ ডিগ্রি। অন্যদিকে, এ সপ্তাহের শনিবারে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা শ্রীমঙ্গলে ১১ দশমিক ৩। একই সময়ে গত সপ্তাহে ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল  ১৪ দশমিক ১, সেটি এই শনিবারে হয়েছে ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। প্রসঙ্গত , গত সপ্তাহে ঢাকার তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রিতেও নেমেছিল। আর অন্যদিকে সর্বোচ্চ তাপমাত্রাও নেমে গিয়ে ১৭ ডিগ্রিতে পৌঁছেছিল। সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা পার্থক্য কমে যাওয়ায় গত সপ্তাহে নগরবাসী কনকনে শীতে কেঁপেছে। তবে তেমনটা আর হওয়ার সম্ভাবনা নেই এই শীতে। শনিবার ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চলতি সপ্তাহে এটি আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

Loading...

তাপমাত্রার বিষয়ে জানতে চাইলে আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য কম থাকায় শীতের অনুভূতি বেশি ছিল গত সপ্তাহে। আজ শনিবার পার্থক্য অনেক বেশি, আজ  প্রায় ১৩ ডিগ্রির পার্থক্য থাকায় শীতের অনুভূতি নেই বললেই চলে।

ঢাকার বাইরের শহরগুলোতেও ধীরে ধীরে তাপমাত্রা বাড়ছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

আবহাওয়া অফিস জানায়, তাপমাত্রার পার্থক্যের পাশাপাশি গত সপ্তাহে বাতাসের গতিও ছিল বেশি। গত সপ্তাহে গড়ে বাতাসের গতি ছিল ঘণ্টায় ৬ থেকে ১২ কিলোমিটার। শনিবার সেই গতির পরিমাণ ৫ থেকে ১০ কিলোমিটার। অন্যদিকে কুয়াশার পরিমাণও কমে গেছে। গত সপ্তাহে যে পরিমাণ ঘন কুয়াশায় ছেয়ে ছিল দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলের আকাশ। চলতি সপ্তাহে সে তুলনায় কুয়াশা থাকবে একেবারে হালকা।

আবহাওয়ার ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এই লঘুচাপের প্রভাবে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তবে রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও সিরেট বিভাগের দুই এক জায়গায় হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। আজকে রাতে তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। তবে রবিবার (১৯ জানুয়ারি) দিনের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস কমার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

চলতি সপ্তাহের আবহাওয়া বিষয়ে আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার পর্যন্ত আবহাওয়া প্রায় একই রকম থাকবে। আজ ও আগামীকাল উত্তরাঞ্চলের দুই এক জায়গায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। ফলে এসব এলাকাগুলোয় তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে। এছাড়া মঙ্গলবারের পর গড়ে তাপমাত্রা দুই এক ডিগ্রি কমবে। কিন্তু সেই তাপমাত্রা গত সপ্তাহের মতো হবে না। শীতের আমেজ কমে এসেছে



শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..





(Registered at the Directorate of Information, Government of the People's Republic of Bangladesh) © All rights reserved © 2019 DailyCoxnews
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com