• সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ১১:৪৮ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
নোটিশ :
প্রতিটি জেলায় দক্ষ ও অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে বেতন-ভাতা আলোচনা সাপেক্ষ।আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন ০১৮৬৫-১১৫৭৮৭ আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বাগতম>> তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে সাথে থাকুন ধন্যবাদ।

নেইমারের বিনিময়ে কৌতিনহোকে চায় পিএসজি!

রিপোর্টার
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৯

নেইমার ও কৌতিনহো-ছবি: সংগৃহীত

গ্রীষ্মের দলবদলের বাজার বন্ধ হওয়ার আগেই নেইমার নাটক থেকে মুক্তি চায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। নাটকটা এত দীর্ঘ সময় মঞ্চস্থ হওয়ার পেছনে অবশ্য পিএসজির দায়ও কম নয়। তবে অবশেষে বার্সার সঙ্গে তাদের মতের মিল হতে চলেছে। এবার নেইমারের বিনিময়ে ফিলিপ্পে কৌতিনহোকে চায় পিএসজি।

শুরু থেকেই নেইমারের জন্য খেলোয়াড় বিনিময়ের অফার দিয়ে এসেছে বার্সেলোনা। কিন্তু অনেকটা জেদের বসেই পিএসিজি এতদিন এ নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। বরং রেকর্ড অর্থের বিনিময়েই কেবল নেইমারকে ছাড়া হবে বলে জানিয়ে দিয়েছিল ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। এই নিয়ে মতভেদ দেখা দেওয়ায় নেইমারের দলবদল প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছিল।
php glass

কিছুদিন আগেই জানা গিয়েছিল, নেইমারকে আর যাই হোক বার্সার কাছে বেচবে না পিএসজি। এর মধ্যে আবার ঢুকে পড়ে রিয়াল মাদ্রিদ। দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নিয়ে রিয়ালকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা হাতে নেন ফরাসি কিংবদন্তি জিনেদিন জিদান। এজন্য চেলসি থেকে মোটা অঙ্কের বিনিময়ে বেলজিয়ান উইঙ্গার ইডেন হ্যাজার্ডকে দলে ভিড়িয়েছেন। কিন্তু এক হ্যাজার্ডে সন্তুষ্ট হতে পারছেন না তিনি।

বার্সেলোনা আর রিয়ালের সঙ্গে পিএসজির দরকষাকষি নিয়ে নেইমারের খুব একটা আগ্রহ দেখা যায়নি। কারণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের একমাত্র পছন্দ বার্সা। তার জন্য ২০০ মিলিয়ন ইউরো দাবি করায় বার্সা পিছু হটলে সামনে চলে আসে রিয়ালের নাম। কিন্তু নেইমারের জেদই হয়তো বাস্তবের মুখ দেখতে চলেছে।

ফরাসি সংবাদমাধ্যম ‘আরএমসি স্পোর্ট’ জানিয়েছে, শেষ পর্যন্ত বার্সার খেলোয়াড় বিনিময়ের অফারেই রাজি হতে চলেছে পিএসজি। তবে তাদের পছন্দ নেইমারের স্বদেশী কৌতিনহো। এজন্য কয়েকদিন আগে নাকি দুই ক্লাবের পরিচালকরা বৈঠকেও বসেছিলেন। সেই বৈঠকেই নেইমারের জন্য বড় অঙ্কের অর্থ দাবি করলেও কৌতিনহোর ব্যাপারে ইতিবাচক ইঙ্গিত দিয়েছে পিএসজি।

দলবদলের বাজারে পিএসজি অবশ্য শুধু নেইমারকে নিয়েই পড়ে আছে তা নয়। তাদের একজন গোলরক্ষক প্রয়োজন। ধারের মেয়াদ শেষ হওয়ায় গত মৌসুমের পর জুভেন্টাসে ফিরে গেছেন ইতালিয়ান গোলরক্ষক জিউনলুইজি বুফন। এদিকে জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালাকেও আনতে চায় পিএসজি। এজন্যই নেইমারকে বেচে মোটা অঙ্ক কামিয়ে নেওয়ার চেষ্টা তাদের। কিন্তু সফল না হওয়ায় এখন কৌতিনহোই হয়তো শেষ আশার আলো।

এদিকে লড়াই থেকে সরে দাঁড়ায়নি রিয়ালও। তবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের চেয়ে আলোচনায় অনেকটা এগিয়ে গেছে বার্সেলোনা। শেষ পর্যন্ত নেইমারের কোথায় হয়, এখন সেটাই দেখার বিষয়। তবে এটা অনেকটা নিশ্চিত যে, পিএসজি ছাড়তেই হচ্ছে নেইমারকে। এরইমধ্যে তাকে ছাড়াই মৌসুম শুরু করে দিয়েছে পিএসজি।



ফেসবুকে আমরা