• শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
নোটিশ :
প্রতিটি জেলায় দক্ষ ও অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে বেতন-ভাতা আলোচনা সাপেক্ষ।আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন ০১৮৬৫-১১৫৭৮৭ আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বাগতম>> তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে সাথে থাকুন ধন্যবাদ।

উখিয়ার লোকলয়ে মুরগির বর্জ্য, পঁচা দুর্গন্ধে জনজীবন অতিষ্ট

রিপোর্টার
আপডেট : রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯

মোহাম্মদ ইব্রাহীম, উখিয়া::
উখিয়ার ঘনবসতিপূর্ন এলাকা সিকদারবিল গ্রামের লোকালয়ে অনৈতিকভাবে পোল্ট্রি ফার্ম স্থাপন পূর্বক, মুরগির বজর্য মজুদ করার ফলে পঁচা দুর্গন্ধে মারাত্বক পরিবেশ দুষনের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় গ্রামবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ করলে তিনি ঘটনাস্থল পরির্দশন করলেও কোন কাজ হয়নি। এনিয়ে গ্রামের মধ্যে চাপা উত্তোজনা বিরাজ করছে।

পরিবেশ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, স্বাস্থ্য ঝুকির আশংকা আছে এমন অবস্থায় কোন বানিজ্যিক লাভজনক প্রতিষ্ঠান করার যাবে না এই নীতিমালার আলোকে সিকাদারবিল এলাকায় স্থাপিত পোল্টি ফার্মের বজর্য অপসারনের স্থানকে সরজমিন ঘুরে গ্রামবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, তারা পোল্টি ফার্মের বর্জ্যের কারনে মানসিকভাবে বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে। স্থাণীয় একজন গ্রামবাসী আনোয়ার খান জানান, স্থানীয় মো: ইউসুফের ছেলে ইমরান কায়সার আকাশ নামক এক যুবক ঐ পোল্টি ফার্মটি তার নিজস্ব জোত জমির উপর স্থাপন করে। মুরগির বজর্যগুলো মাছের খাবারের জন্য একটি কাচাঁ ঘরে মজুদ করছে। মজুদকৃত মুরগির বিষ্টার পচঁা দূগন্ধে স্থানীয় গ্রামবাসীকে পোহাতে হচ্ছে মানসিক যন্ত্রনা। পাশাপাশি উক্ত বিষ্টার দূগন্ধের কারনে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ার অভিযোগ উঠেছে। একইভাবে স্থানীয় মো: আলী হোসেন সরওয়ার ও আবুল কালাম অভিযোগ করে জানান, একটি পরিবেশ সম্মত জনসমাগমপূর্ন এলাকায় পোল্টি ফামৃ ও মুরগির বিষ্টা মজুদ করা স্বাস্থের জন্য মারাত্বক ঝুকিপূর্ণ। এ প্রসঙ্গে আলাপ করা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: নিকার“জ্জামান জানান, লোকালয় থেকে মুরগির বজর্য অপসারন করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তিনি বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সেনেটারী ইন্সপেক্টরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেনেটারী ইন্সপেক্টর নুর“ল আমিন জানান, তিনি ঘটনাটি তদন্ত করে সত্যতা পেয়েছেন। অবিলম্বে মুরগির বর্জ্য অপসারন করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



ফেসবুকে আমরা