• শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম
উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় আর্মড পুলিশের এএসআই নিহত আওয়ামীলীগ বাংলাদেশের রাজনীতিতে সবসময়ই অত্যন্ত শক্তিশালী ও গুরুত্বপূর্ণ দল -কৃষিমন্ত্রী জয়পুরহাটে দুই শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তির কারাদণ্ড মৌলভীবাজারে শ্রীমঙ্গলে রেলের জমি উদ্ধারে বাধা, রেলের এক্সাভেটরে দুর্বৃত্তের আগুন শেষ হলো সংসদের চতুর্দশ অধিবেশন দেশে করোনায় আরও ৫১ জনের মৃত্যু ইভ্যালির সিইও রাসেল গ্রেপ্তার প্রবাস থেকে স্বামী আসার খবরে প্রেমিকের হাত ধরে পালালো এক সন্তানের জননী কোটবাজারে চাকবৈঠার ইব্রাহিম বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ র‍্যাবের হাতে আটক রত্নাপালং ইউপি নির্বাচন : চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে ইমাম হোসেন

টেকনাফে থেমে নেই ইয়াবা কারবার

এম ফেরদৌস ( উখিয়া কক্সবাজার)
আপডেট সময় : শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০
আটক

কক্সবাজার জেলার টেকনাফ পৌরসভা কাইউকখালী পাড়ায় অভিযান পরিচালনা করে ৯ হাজার,৬শত ৫০পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫।

আটককৃত হলেন,সাবরাং পেন্ডল পাড়া ৫ নং ওয়ার্ডের আব্দুস সালামের পুত্র হেলাল উদ্দিন (২৭) ও
নুর মোহাম্মদ (২০), পিতা-মৃত হোসেন আহাম্মদ, সাবরাং রুহুল্লার ডেপার স্থায়ী বাসিন্দা।

শনিবার ( ১৯ ডিসেম্বর) ১১ টার দিকে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন টেকনাফ কাইউকখালী এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের সহকারী পরিচালক ( মিডিয়া অফিসার) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

তথ্যসূত্রে জানা যায়,, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক কারবারী কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন পৌরসভাস্থ কাইউকখালী পাড়ার বাঁেশর গুদামের সামনের পাঁকা রাস্তার উপর মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর একটি চৌকশ আভিযানিক দল উপরোক্ত স্থানে পৌঁছালে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারীরা অটোরিক্সা এবং মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে আটক করা হয়

গ্রেফতারকৃত আসামীদের পালানোর কারণ জিজ্ঞাসা করলে তারা কোন সন্তোষজনক জবাব দিতে পারেনি এবং তাদের আচরন সন্দেহজনক মনে হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে ধৃত আসামীদের মোটরসাইকেলের সীটের নিচ হতে সর্বমোট ৯,৬৫০ (নয় হাজার ছয়শত পঞ্চাশ) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ টেকনাফের সীমান্তবর্তী এলাকা হতে ইয়াবা সংগ্রহ করে কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্রয় করে আসছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাদেশে ইয়াবা প্রবেশের অন্যতম স্থান টেকনাফ থেকে প্রতিনিয়ত দেশের বিভিন্ন স্থানে গেছে ইয়াবার চালান। এসব ইয়াবা পরিবহনে কৌশলও পাল্টেছে মাদক ব্যবসায়ীরা।
নিত্য নতুন কৌশল অবলম্বন করে ইয়াবা পরিবহন করে আসছে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে যাচ্ছে এসব ইয়াবার চালান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর