পালিয়ে বিয়ে করতে যাওয়ার সময় নিহত প্রেমিক-প্রেমিকা | Daily Cox News
  • বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:২৯ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পালিয়ে বিয়ে করতে যাওয়ার সময় নিহত প্রেমিক-প্রেমিকা

ডেস্ক রিপোর্ট
আপডেট সময় : বুধবার, ১১ নভেম্বর, ২০২০
পালিয়ে বিয়ে করতে যাওয়ার সময় নিহত প্রেমিক-প্রেমিকা

পরিবারের সদস্যরা বিয়েতে রাজি না হওয়ায় প্রেমিক-প্রেমিকা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করবেন। সেই অনুযায়ী বাড়ি থেকেও পালিয়েছিলেন তারা। তাদের সাথে ছিলো সহায়তাকারী এক বন্ধুও। কিন্তু শেষপর্যন্ত তিনজনই বাড়ি ফেরেন লাশ হয়ে। সড়ক দূর্ঘটনা কেড়ে নিয়েছপ তাদের জীবন।

ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলায়। জানা গেছে রাতের আঁধারে বাড়ি থেকে পালিয়ে মোটরসাইকেলে বিয়ে করার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন তারা। এমন আসায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সাথে বুধবার (১১ নভেম্বর) সকালে টাঙ্গাইল-আরিচা আঞ্চলিক মহাসড়কের নাগরপুর উপজেলার দাসপাড়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে মোটরসাইকেলে থাকা তিনজন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

নিহতরা হলো- সদর উপজেলার কাকমারা এলাকার আবদুল মান্নানের মেয়ে মমতা হিয়া (১৫), দেলদুয়ার উপজেলার জাঙ্গালিয়া গ্রামের আবদুল বারেকের ছেলে শুভ আক্তার সানি (১৮) এবং শুভর বন্ধু ও করটিয়া বাইপাস এলাকার মোস্তফার ছেলে বাপ্পি (২২)। নিহত মমতা টাঙ্গাইলের বিবেকানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নাগরপুর থানার ওসি (তদন্ত) বাহারুল ইসলাম জানান, দুই কিশোর-কিশোরী নাগরপুরের ডুবুরিয়া গ্রামের নানাবাড়ি থেকে পালিয়ে মোটরসাইকেলে টাঙ্গাইলের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় সহযোগিতা করতে তাদের এক বন্ধুও মোটরসাইকেলে ছিল। কিন্তু যাত্রাপথে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক ওই মোটরসাইকেলকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়।

এসময় তিনি আরও বলেন, পুলিশ সংবাদ পেয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে এবং ঘাতক ট্রাকটি আটক করে। তবে এ ঘটনায় ঘাতক চালক পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ