প্রকাশ্যে ছেলেকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী বাবা গ্রেপ্তার | Daily Cox News
  • শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৪৯ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

প্রকাশ্যে ছেলেকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী বাবা গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট সময় : বুধবার, ৪ নভেম্বর, ২০২০
প্রকাশ্যে ছেলেকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী বাবা গ্রেপ্তার

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজে’লায় মঈন উদ্দিন সাদ্দামকে (২৭) প্র’কাশ্যে গা’য়ে কে’রোসিন ঢে’লে আ’গুনে পু’ড়িয়ে হ’ত্যা মা’মলার অন্যতম আ’সামি মূল পরিকল্পনাকারী নি’হতের বাবা মোস্তফা চৌধুরীকে (৫৫) গ্রে’ফতার করেছে সি’আইডি পুলিশ। গ্রে’ফতার মোস্তফা চৌধুরী উপজে’লার কাশিপুর মধ্য পাড়ার মৃ’ত হাজী রঙ্গু মিয়ার ছে’লে এবং নি’হত সাদ্দামের বা’বা।

বুধবার (৪ নভেম্বর) ভোরে গো’পন সংবাদের ভিত্তিতে ক্রি’মিনাল ই’নভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সি’আইডি) নোয়াখালী জে’লা ত’দন্তকারী কর্মকর্তা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামসহ সি’আইডির একটি দল সোনাইমুড়ী ছাতারপাইয়া এলাকা থেকে প’লাতক মোস্তফা চৌধুরীকে আ’টক করে।

এরআগে, সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ ও পুলিশ ব্যুরো অব ই’নভেস্টিগেশনের (পি’বিআই) কাছে মা’মলাটির দায়িত্ব থাকলেও তারা আ’সামিকে গ্রে’ফতার করতে ব্যর্থ হয়।

সি’আইডি নোয়াখালী জে’লা ত’দন্তকারী কর্মকর্তা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম জানান, মা’মলার ঘটনা সংক্রান্তে আ’সামিকে জি’জ্ঞাসাবাদসহ অন্য আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় উপজে’লার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের কাশিপুর মধ্যপাড়া গ্রামে সাদ্দামকে তার নিজ বাড়ির উঠানে গা’য়ে কে’রোসিন ঢে’লে আ’গুন ধ’রিয়ে দেয়, তার নিজের বা’বা মোস্তফা চৌধুরীর নির্দেশে বড় বোন কুলসুম আক্তার ধনি ও মা রায়হা’না বেগম। এসময় তার আত্মচি’ৎকার শুনে এলাকাবাসী এসে তাকে উ’দ্ধার। পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ বার্ন ইউনিটে ভর্তি করে।

তার শরীরের ৮০ ভাগ পু’ড়ে যাওয়ায় ২০ দিন তিনি মৃ’ত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে চি’কিৎসাধীন অবস্থায় (১৩ নভেম্বর ২০১৮) ঢাকার একটি হা’সপাতালের বার্ন ইউনিটে মৃ’ত্যুবরণ করে। এ ঘটনায় পরদিন তার স্ত্রী আসমা আক্তার বা’দী হয়ে সোনাইমুড়ী থানায় ৩ জ’নকে আ’সামি করে একটি হ’ত্যা মা’মলা দা’য়ের করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ