• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:০১ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ফিফা বর্ষসেরার লড়াইয়ে লেভানদোভস্কির সঙ্গে মেসি-রোনালদো

ডেস্ক রিপোর্ট
আপডেট সময় : বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
ফিফা বর্ষসেরার লড়াইয়ে লেভানদোভস্কির সঙ্গে মেসি-রোনালদো

হয় লিওনেল মেসি নয়তো ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো থাকেন ফেভারিটের তালিকায় শীর্ষে। তবে এবারের পরিস্থিতি একেবারে অন্যরকম। সময়ের সেরা দুই তারকা প্রত্যাশামতোই আছেন ২০২০ সালের ফিফা বর্ষসেরার দৌড়ে। তবে বায়ার্ন মিউনিখের ত্রিমুকুট জয়ে সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশের আগে অনেকের বিবেচনায় পুরস্কারটির দাবিদার রবার্ত লেভানদোভস্কি।

এই তিন তারকাকে নিয়ে আজ (বুধবার) ১১ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা। ‘ফিফা বেস্ট’-এর দৌড়ে আরও আছেন লেভানদোভস্কির সাবেক বায়ার্ন সতীর্থ থিয়াগো আলকান্তারা। এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের বর্তমান ক্লাব লিভারপুল থেকে আছেন আরও তিনজন- সাদিও মানে, মোহামেদ সালাহ ও ভার্জিল ফন ডাইক। প্যারিস সেন্ত জার্মেইয়ের দুই ফরোয়ার্ড নেইমার ও কিলিয়ান এমবাপ্পে, ম্যানচেস্টার সিটির কেভিন ডি ব্রুইন, আর রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক সের্হিয়ো রামোস।

১৭ ডিসেম্বর জানা যাবে বিজয়ীর নাম। তার আগে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে ভোট। সেই প্রক্রিয়া শুরুর আগেই অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন লেভানদোভস্কি। ইতিমধ্যে এই পোলিশ স্ট্রাইকার জিতেছেন উয়েফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। বায়ার্নের ত্রিমুকুট জয়ে সামনে থেকে নেতৃ্ত্ব দিয়েছেন তিনি। গোলের পর গোল করে নিজেকে নিয়ে গেছেন অন্য উচ্চতায়। ঘরোয়া ডাবলের পর বায়ার্নের চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের পথেও তার অবদান অনেক।

সাফল্য যেখানে লেভানদোভস্কিকে এগিয়ে রাখছে, সেখানে পুরস্কারটির বর্তমান মালিক মেসি কোনও ‍শিরোপাই জিততে পারেননি ২০১৯-২০ মৌসুমে। উল্টো এই পোলিশ স্ট্রাইকারের বায়ার্নের কাছে হারতে মেসির বার্সেলোনাকে হয়েছিল ৮-২ গোলে। অন্যদিকে রোনালদো সিরি ‘আ’ জিতলেও চ্যাম্পিয়নস লিগে ছিলেন ব্যর্থ। তার দল জুভেন্টাস ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নিয়েছিল শেষ ষোলো থেকে। অবশ্য ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে আলো ছড়িয়েছেন সাবেক রিয়াল উইঙ্গার, করেছিলেন ৩১ গোল।

বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের সঙ্গে বর্ষসেরা কোচের সংক্ষিপ্ত তালিকাও প্রকাশ করেছে ফিফা। এই ক্যাটাগরিতে সবচেয়ে বড় ‍চমক লিডস ইউনাইটেডের মার্সেলো বিয়েলসা। আর্জেন্টাইন কোচের সঙ্গে লড়াইয়ে আছেন বায়ার্নের হানসি ফ্লিক, লিভারপুলের ইয়ুর্গেন ক্লপ, সেভিয়ার জুলেন লোপেতেগি ও রিয়াল মাদ্রিদের জিনেদিন জিদান।

আর বর্ষসেরা গোলকিপারের লড়াইয়ে আছেন আলিসন, থিবো কোর্তোয়া, কেইলর নাভাস, মানুয়েল নয়ার, ইয়ান ওবলাক ও মার্ক-অ্যান্ড্রে টের স্টেগেন।

ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের মনোনয়ন পেলেন যারা:

থিয়াগো আলকান্তারা (স্পেন/লিভারপুল, বায়ার্ন মিউনিখ)

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (পর্তুগাল/জুভেন্টাস)

কেভিন ডি ব্রুইন (বেলজিয়াম/ম্যানচেস্টার সিটি)

রবার্ত লেভানদোভস্কি (পোল্যান্ড/বায়ার্ন মিউনিখ)

সাদিও মানে (সেনেগাল/লিভারপুল)

কিলিয়ান এমবাপ্পে (ফ্রান্স/প্যারিস সেন্ত জার্মেই)

লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা/বার্সেলোনা)

নেইমার (ব্রাজিল/প্যারিস সেন্ত জার্মেই)

সের্হিয়ো রামোস (স্পেন/রিয়াল মাদ্রিদ)

মোহামেদ সালাহ (মিশর/লিভারপুল)

ভার্জিল ফন ডাইক (নেদারল্যান্ডস/লিভারপুল)


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর