বাইডেন পরিবারের যত 'অজানা' তথ্য | Daily Cox News
  • শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:২৯ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বাইডেন পরিবারের যত ‘অজানা’ তথ্য

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আপডেট সময় : শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০
বাইডেন পরিবার

হিসাব বলছে জো বাইডেনই এবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হতে যাচ্ছেন। তারপরও আছে টান টান উত্তেজনা।

যে কোনো মুহূর্তে নির্বাচনের ফল ট্রাম্পের দিকে চলে যেতে পারে। কারণ ভোট গণনা এখনও শেষ হয়নি। আর দুজনের মধ্যে ব্যবধান খুবই অল্প।
তো জো বাইডেন যদি সত্যিই আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে যান, তাহলে তার সম্পর্কে বা তার পরিবার সম্পর্কে আমাদের জানার আগ্রহ তৈরি হতেই পারে।

তাহলে আসুন তার আগেই অল্প কিছু অজানা তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময় ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন জো বাইডেন।

তার আগে ১৯৭৩ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত ডেমোক্রেটিক পার্টির হয়ে ডেলওয়ার থেকে সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তবে জীবনে সফলতার পাশাপাশি পারিবারিক বেশ কিছু ধাক্কা সামলাতে হয়েছে তাকে।
ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ১৯৬৬ সালে নেইলিয়া হান্টারের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন বাইডেন। পরে সেই নারীর গর্ভে জন্ম নেয় বাইডেনের তিন সন্তান। কিন্তু তৃতীয় সন্তান জন্মের মাত্র এক বছর পর ঘটে যায় ভয়াবহ ঘটনা। সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ যায় বাইডেনের স্ত্রী ও কন্যার। এরপর তিন ও চার বছরের ছেলেকে বড় করে তোলার লড়াই শুরু হয় বাইডেনের। এরপর ১৯৭৭ সালে এসে জিল বাইডেনের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় জো বাইডেনের।

জিল আগে বিয়ে করেছিলেন। ২৪ বছর বয়সে সম্পর্কে বিচ্ছেদ ঘটে। সে কারণে এমন কাউকে খুঁজছিলেন, যার হাত আর কখনো ছাড়তে হবে না। জিল পরে বলেছেন, মৃত্যুর আগ পর্যন্ত জো বাইডেনের সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে ভুল করেননি। তাদের সন্তানরা আবারও মাকে হারাবে না। বিয়ের পর বাইডেনের ছেলেদের নিজের গর্ভের সন্তানের মতো করেই দেখেছেন জিল বাইডেন। পরে তাদের সংসারে মেয়ে অ্যাশলের জন্ম হয় ১৯৮১ সালে।

বারাক ওবামার সময় জো বাইডেন ভাইস প্রেসিডেন্ট হওয়ার ফলে আট বছর ধরে মার্কিন সেকেন্ড লেডি হিসেবে সম্মান পেয়েছেন জিল বাইডেন। ২০১৫ সালে এসে বাইডেনের এক ছেলে মারা যায়। সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠলেও সন্তানের সমাধিতে মাঝে মাঝেই ছুটে যান বাইডেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ