• বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সরকার মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে : ফখরুল

রিপোর্টার নাম :
আপডেট সময় : বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১
bnp 20210415030909

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ সরকার এখন মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়েও ছিনিমিনি খেলছে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে এক ইফতার মাহফিলে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার করোনাভাইরাসসহ অন্যান্য সকল রোগ থেকে দ্রুত মুক্তির জন্য কুরআনখানি ও এতিমদের সঙ্গে এই ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন (জেডআরএফ)। প্রথম রমজানে রাজধানীর মহাখালীর টি অ্যান্ড টি মসজিদ সংলগ্ন জামিয়া কাসিমিয়া মাদরাসা ও এতিমখানায় এই ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেডআরএফের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার।

দোয়া পূর্ব ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন,
করোনায় গোটা বিশ্ব বিপর্যস্ত। আমরা গত প্রায় বারো বছর ধরে একটি কর্তৃত্ববাদী শাসনের মধ্যে আছি। গোটা জাতি তাদের কথা বলার অধিকার ও গণতন্ত্র হারিয়েছে। আজকে করোনা আমাদের অনেক জীবন নিয়ে গেছে। মানুষের জীবিকা বিপন্ন।

তিনি বলেন, আমাদের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া নিজেও করোনায় আক্রান্ত। তবে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, তিনি আল্লাহর রহমতে সুস্থ আছেন। খালেদা জিয়া প্রতি বছর এতিমদের নিয়ে ইফতার করতেন। তিনি কারাবন্দি তাই ইফতার করতে পারছেন না। আজকে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন এতিমদের নিয়ে ইফতার করছে এজন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে বাংলাদেশে যারা জোর করে ক্ষমতায় বসে আছেন সেই কর্তৃত্ববাদী সরকার করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ। তারা দেশের মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। আজকে হাসপাতালগুলোতে সীমিত আকারে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। গড়ে মাত্র ৩০-৩৫ হাজার টেস্ট হচ্ছে। মানুষ হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ পাচ্ছে না। বেড পাচ্ছে না। করোনা পরীক্ষার সুযোগ পায় না বিশটি জেলার মানুষ। গত বছর করোনার জন্য আন্তর্জাতিক সংস্থার সহায়তার টাকাও খরচ করতে পারেনি। করোনা পরীক্ষা ও সুরক্ষার সরঞ্জাম বিমানবন্দরে পড়ে আছে। সরকারের কোনো জবাবদিহিতা নেই। তারা মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে লকডাউনে স্বল্প আয়ের মানুষ সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন। তদের জন্য কোনো প্রণোদনা সহায়তা করা হয়নি। যা দেয়া হচ্ছে তা প্রকৃত অসহায় মানুষ পায় না।

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইফতার মাহফিলে সশরীরে উপস্থিত ছিলেন জেডআরএফের ওয়ার্কিং কমিটির সদস্য ডা. শাহ মুহাম্মদ আমান উল্লাহ, প্রকৌশলী মাহবুব আলম, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, ডা. পারভেজ রেজা কাকন, শফিকুল ইসলাম, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম আকাশ, বনানী থানা বিএনপির সেক্রেটারি মিজানুর রহমান বাচ্চু, ২০ নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের অলিউল্লাহ সায়েম, অ্যামট্যাবের বিপ্লবুজ্জামান বিপ্লব প্রমুখ।

ইফতার মাহফিলে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, নাসির উদ্দিন আহমেদ অসীম, জেডআরএফের ড. এ এস হায়দার পারভেজ, অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডি, অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাত মোহাম্মদ শামীম, ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ, কোষাধ্যক্ষ জহিরুল ইসলাম শাকিল, ডা. খন্দকার মারুফ হোসেনসহ বহু নেতাকর্মী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর