বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:০৫ অপরাহ্ন

চট্টগ্রামে আবারও উর্ধ্বমুখী পিঁয়াজের দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০
মিয়ানমার থেকে ১৯৫ মেট্রিক টন পিয়াজ আমদানি

বেশকিছুদিন স্থিতিশীল থাকার পর চট্টগ্রামে আবারও বাড়ছে পিঁয়াজের দাম। গত দুই সপ্তাহ আগের তুলনায় বিভিন্ন দেশ থেকে আসা পিঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ৫ থেকে ১৫ টাকা পর্যন্ত।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানি কিছুটা কমে আসার কারণে চাহিদা বাড়ায় দাম বাড়ছে। যদিও পিঁয়াজ এনে বিপুল ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার দাবি আমদানিকারকদের।

 

জানা গেছে, প্রায় সব দেশের পিঁয়াজেরই দাম বেড়েছে কেজিতে ৫ থেকে ১৫ টাকা। খাতুনগঞ্জে দেশি পিঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৪৮ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে। যা সপ্তাহদুয়েক আগে ছিল ৪৫ থেকে ৪৮ টাকা কেজি। তুলনামূলক ভালো মানের তুরষ্কের পিঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে মানভেদে ৫২ থেকে ৬৮ টাকা দরে, পনেরো দিন আগে যা ছিল ৩৫ থেকে ৪৫ টাকার মধ্যে।

 

এছাড়া মিশর, চীন, ইরান, আফগানিস্তান, হল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের পিঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে আগের তুলনায় ১০-১৫ টাকা বেশিদরে।

আড়তদাররা বলছেন, মাস দুয়েকয়েক আগে বিভিন্ন দেশ থেকে চাহিদার অতিরিক্ত ও নিম্নমানের বিপুল পরিমাণ পিঁয়াজ আসায় দাম কমে যায়। এখন আমদানির পরিমাণ কমার পাশাপাশি ভালো মানের পিঁয়াজের চাহিদা বাড়ায় বাড়ছে দাম। আমদানিকারকরা বলছেন, পিঁয়াজ আমদানি করে এবার বিপুল ক্ষতির শিকার হয়েছেন তারা।

এখন দাম একটু বাড়লে সেই ক্ষতি পোষাতে চান তারা। 

কৃষিবিভাগের তথ্যমতে, ২ লাখ ৮ হাজার ১৮৪ মেট্রিকটন আমদানির ছাড়পত্রের বিপরীতে বিশ্বের ১১ দেশ থেকে এখন পর্যন্ত বন্দরে এসেছে ৯১ হাজার ৭২৫ মেট্রিকটন পিঁয়াজ।


এ জাতীয় সংবাদ