শিরোনাম :
রোহিঙ্গাদের থানা নোয়াখালী ভাসানচর রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক নিয়ে চীনের সন্তোষ উখিয়া বালুখালী ক্যাম্পের তৈয়ব ও তার সহযোগী বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ আটক উখিয়ায় মোটরসাইকেল সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেত্রী রোমানার ভাই গুরুতর আহত লিংক রোডে র‌্যাবের হাতে ইয়াবা নিয়ে হোয়াইক্যংয়ের দুই মাদক কারবারীসহ আটক-৩ ভাসানচরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে স্বস্তি বোধ করছেন রোহিঙ্গারা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপহৃতের সঙ্গে নারীর ‘আপত্তিকর ছবি’ তুলে রাখতো তারা বছরের মাঝামাঝি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রাইভেট সিএনজি বাণিজ্যিকভাবে চালানো যাবে না : হাইকোর্ট বাহারছড়া কোস্টগার্ডের অভিযানে সাড়ে ১৭হাজার মিটার কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট
বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন

সাগরে ১৬ দিন ধরে ট্রলারসহ ১৮ জেলে নিখোঁজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০
মেঘনায় বরযাত্রীবাহী ট্রলারডুবি: নারী-শিশুসহ আটজন এখনো নিখোঁজ

বরগুনা: গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ১৬দিন ধরে একটি মাছ ধরা ট্রলারসহ ১৮ জেলে নিখোঁজ রয়েছে। সাগর থেকে জেলেরা ফিরে না আসা এবং তাদের সন্ধান না পাওয়ায় ট্রলার মালিক মো. নুরুল ইসলাম সোমবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধায় বরগুনা সদর থানায় একটি জিডি করেছেন।

 

নিখোঁজ জেলেদের মধ্যে ১১ জনের বাড়ি বরগুনা জেলার গুলিশাখালী ও বাকি ৭জনের বাড়ি ভোলার নুরাবাদ এলাকায়।

এফবি হযরত কায়েদ (র.) ট্রলারের মালিক মো. নুরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

1604596189

১৮ জেলের মধ্যে বরগুনার গুলিশাখালী এলাকার মো. রিপন, মো. বাবুল, আলমগীর হোসেন, মোশারেফ হোসেন ও ভোলা জেলার নুরাবাদ এলাকার মো. ফারুক মাঝির নাম পাওয়া গেছে। 

নুরুল ইসলাম জানান, গত ৬ ডিসেম্বর বরগুনার গুলিশাখালী ঘাট থেকে ১৮ জেলেসহ বাজার সদায় নিয়ে মাছ ধরার জন্য সাগরে রওয়ানা হয়।

1604595986 1587538874 p

সাধারণত প্রতি ট্রিপ ৮ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই কুলে ফিরে আসে। এ সময়ের মধ্যে না আসায় এবং জেলেদের সাথে কোন যোগাযোগ করতে না পারায় বরগুনা সদর থানায় জিডি করা হয়েছে।

 

তিনি আরও জানান, যে বাজার সদায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাতে মাত্র ৮ থেকে ১০ দিনের মতো চলবে। এখনো না আসাতে ধারণা করা হচ্ছে ইঞ্জিন বিকল হয়ে সাগরে ভাসতে পারে।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরি বলেন, ট্রলার মালিক আমাদের বিষয়টি জানিয়েছে। আমরা আইনের সহযোগিতা চেয়েছি এবং সমিতির পক্ষ থেকেও অনুসন্ধান করা হবে।

বরগুনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কে.এম. তারিকুল ইসলাম সোমবার রাত ১১টায়  বলেন, নুরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি থানায় জিডি করেছেন। আমরা বিষয়টি দেখছি।


এ জাতীয় সংবাদ