শিরোনাম :
রোহিঙ্গাদের থানা নোয়াখালী ভাসানচর রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক নিয়ে চীনের সন্তোষ উখিয়া বালুখালী ক্যাম্পের তৈয়ব ও তার সহযোগী বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ আটক উখিয়ায় মোটরসাইকেল সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেত্রী রোমানার ভাই গুরুতর আহত লিংক রোডে র‌্যাবের হাতে ইয়াবা নিয়ে হোয়াইক্যংয়ের দুই মাদক কারবারীসহ আটক-৩ ভাসানচরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে স্বস্তি বোধ করছেন রোহিঙ্গারা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপহৃতের সঙ্গে নারীর ‘আপত্তিকর ছবি’ তুলে রাখতো তারা বছরের মাঝামাঝি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রাইভেট সিএনজি বাণিজ্যিকভাবে চালানো যাবে না : হাইকোর্ট বাহারছড়া কোস্টগার্ডের অভিযানে সাড়ে ১৭হাজার মিটার কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট
বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

কক্সবাজার র‍্যাব-১৫’র অভিযানে পালংখালীর মিজান আটক

এম ফেরদৌস (উখিয়া কক্সবাজা)
আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১
আটক

কক্সবাজার জেলার সদর লিংকরোড পয়েন্টে কক্সবাজার- চট্টগ্রাম মেইন রোড সংলগ্ন শ্যামলী বাস কাউন্টার এর সামনে থেকে ১ হাজার ৮শত ৪৫ পিস ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছেন যাব-১৫।

আজ বৃহস্পতিবার ( ১৪ ই জানুয়ারি) কক্সবাজার সদর লিংকরোড এলাকায় র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ান র‍্যাব-১৫ এ অভিযান পরিচালনা করেন।

আটককৃত হলেন, উখিয়া পালংখালী ইউনিয়নের রজবকাটা এলাকার মৃত ইব্রাহিমের পুত্র মোঃ মিজানুর রহমান (১৯)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের সহকারী পরিচালক ( মিডিয়া অফিসার) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

তথ্যসূত্রে জানা যায়,র‍্যাব -১৫, কক্সবাজার, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক কারবারী কক্সবাজার জেলার সদর থানাধীন লিংকরোড পয়েন্টে কক্সবাজার- চট্টগ্রাম মেইন রোডের উত্তর পার্শ্বে শ্যামলী বাস কাউন্টার এর সামনে পাঁকা রাস্ত্মার উপর মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতের্ যাব-১৫, কক্সবাজার এর একটি চৌকশ আভিযানিক দল উপরোক্ত স্থানে পৌঁছালে র‍্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারী পালিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে আটক করা হয়

গ্রেফতারকৃত আসামীকে পালানোর কারণ জিজ্ঞাসা করলে সে জানায়, তার নিকট মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট আছে। পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে ধৃত আসামীর হাতে থাকা ব্যাগ তল্লাশী করে সর্বমোট ১,৮৪৫ (এক হাজার আটশত পয়তালিস্নশ) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আসামী স্বীকার করে যে, সে দীর্ঘদিন যাবৎ টেকনাফের সীমান্ত্মবর্তী এলাকা হতে ইয়াবা সংগ্রহ করে কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্রয় করে আসছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে কক্সবাজার জেলার সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


এ জাতীয় সংবাদ