সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন

মিয়ানমারে অস্থিরতার রেষ পড়বে না কক্সবাজার সীমান্তে: বিজিবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
মিয়ানমারে অস্থিরতার রেষ পড়বে না কক্সবাজার সীমান্তে: বিজিবি

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পরও স্বাভাবিক সীমান্ত পরিস্থিতি। টহল জোরদার করা হলেও, নেই কোন আশঙ্কা- এমন দাবি বিজিবির। এরইমধ্যে সীমান্ত এলাকা ঘুরে দেখেছেন বিজিবি প্রধান। আপাতত শঙ্কা না দেখলেও স্থানীয়রা বলছেন, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঠেকাতে দরকার বাড়তি সতর্কতা।

টেকনাফের নাফ নদী। বাংলাদেশ-মিয়ানমারের সীমান্ত নদী। তাই ওপারের যেকোন উত্তেজনার আঁচ লাগে এই সীমান্তেও।

মিয়ানমারে সেনা অভ্যূত্থানের পর এখন সবার নজর এই কক্সবাজার সীমান্তে। সেকারণে, সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ঝটিকা ঘুরে গেছেন বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ সাফিনুল ইসলামও।

বিজিবি-২ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান বলছেন, মিয়ানমারে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে সীমান্তে সতর্ক অবস্থানে আছেন বাহিনীর সদস্যরা। সবকিছু যাতে স্বাভাবিক থাকে সেজন্য নেয়া হয় সব পদক্ষেপ।

পাশের দেশে হঠাৎ উত্তেজনায় সবচেয়ে বেশি উৎকণ্ঠায় সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দারা। তাদের শঙ্কা, যেকোন সময় হয়তো আবারো শুরু হতে পারে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ। তবে বিজিবিরি টহলে ফিরেছে স্বস্তি। এরপরও দাবি, যেন আরও বাড়ে সতর্কাবস্থা।

২০১৭ সালে মিয়ানমার থেকে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের মূল পয়েন্ট ছিলো শাহপরীর দ্বীপ। তাই এই পয়েন্টে নজরদারিও বেশি।


এ জাতীয় সংবাদ