৬২ বছরের বৃদ্ধ মহিলাকে আছাড় মারলেন যুবলীগ সভাপতি | Daily Cox News
  • মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:১৮ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

৬২ বছরের বৃদ্ধ মহিলাকে আছাড় মারলেন যুবলীগ সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট সময় : শনিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২০
৬২ বছরের বৃদ্ধ মহিলাকে আছাড় মারলেন যুবলীগ সভাপতি

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজে’লায় জমি সংক্রান্ত বি’রোধের জে’রে এক বৃ’দ্ধাকে (৬২) পে’টালেন স্থা’নীয় জামালপুর ই’উনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ও’য়ার্ডের ই’উপি স’দস্য এবং ইউনিয়ন যু’বলীগের স’ভাপতি মো. নাজমুল ইসলাম। বৃ’দ্ধাকে পে’টানোর তিন মিনিট ৪৫ সেকেন্ডের ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এরপর বি’ষয়টি নিয়ে শুরু হয় আলোচনা-স’মালোচনা। মা’রধরের শি’কার বৃ’দ্ধার নাম রেহা’না বেগম (৬১)। তিনি উপজে’লার জামালপুর গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী মো. জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী।

ভিডিওতে দেখা যায়, সাদা পাঞ্জাবি প’রিহিত নাজমুল মেম্বারের নে’তৃত্বে তার লোকজনের স’ঙ্গে বৃ’দ্ধা ও তার মে’য়ের ত’র্ক-বি’ত’র্ক হচ্ছে। বাড়ির পাশের রাস্তার সী’মানায় একটি গাছ নিয়ে তাদের এ ত’র্ক-বি’ত’র্ক হয়।

একপর্যায়ে বৃ’দ্ধা গাছ কা’টতে বা’ধা দিতে গেলে তাকে ধ’রে আ’ছাড় মা’রেন নাজমুল মে’ম্বার। পরে মেম্বারের লো’কজন ও মেম্বার নিজে বৃ’দ্ধা মা ও মে’য়েকে বে’ধড়ক কি’ল-ঘু’ষি ও লা’থি মা’রেন। তখন মা-মে’য়ে র’ক্তাক্ত অব’স্থায় কা’ন্নাকাটি করেন।

ভিডিওচিত্রে কাউকে সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। টিনের প্রাচীরের ফাঁ’ক দিয়ে কেউ একজন পুরো ভিডিওটি ধারণ করেন। যার দৈর্ঘ্য ৩ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড।

এ ব্যাপারে ইউপি স’দস্য ও যু’বলীগ নেতা মো. নাজমুল ইসলাম বলেন, ওই ম’হিলা নাজমুল মে’ম্বারদের পুরোনো বাড়ির জমিতে একটি গাছ লাগিয়েছেন। যে রাস্তা দিয়ে অনেক মা’নুষ আসা-যাওয়া করতেন।

বৃহস্পতিবার (০৫ নভেম্বর) বিকেলে আমি ও আমার বাবা ওই গাছ কে’টে রাস্তা প’রিষ্কার করে দিতে বলি। পরে ওই বৃ’দ্ধা আমার বৃ’দ্ধ বা’বাকে কো’পাতে আসেন। এ সময় আমি বা’ধা দেই এবং ধা’ক্কা দিয়ে ফে’লে দেই। আমার বা’বাকে মা’রতে গেলে আমি কি বসে থাকব?

বৃ’দ্ধাকে পে’টানোর ভিডিও ভা’ইরাল হওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, আমার বিপক্ষের কিছু রাজনৈতিক নেতার ই’ন্ধনে এসব হয়েছে। প’রিকল্পিতভাবে গো’পন ক্যামেরায় ওই ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করেছে প্র’তিপক্ষ।

উপজে’লা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী হারুন-অর-রশিদ টিপু বলেন, আমি কালীগঞ্জের বাইরে আছি। বি’ষয়টি শুনেছি। এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে ঊর্ধ্বতন নেতাদের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেব।

জামালপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুর রহমান ফারুক মাস্টার বলেন, আসলে এটি অ’নাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা, যা মোটেই ঠিক হ’য়নি। নাজমুল মেম্বার আমাকে ফোনে জানিয়েছেন তার বা’বাকে ওই না’রী মা’রতে উ’দ্যত হলে ধা’ক্কা মা’রেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেইসবুক পেইজ