• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৫২ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পুত্রসন্তানের আশায় ৬ বছরের মেয়েকে খুন করলেন বাবা

ডেস্ক রিপোর্ট
আপডেট সময় : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
সাবেক স্বামীকে নিয়ে বর্তমান স্বামীকে খুন

কুসংস্কারে বিশ্বাস করে পুত্রসন্তানের আশায় ভারতের ঝাড়খণ্ডে ছয় বছর বয়সের এক কন্যা শিশুকে খুন করেছে তার পিতা। এক ওঝার পরামর্শে পুত্রসন্তান পাওয়া যাবে এমন বিশ্বাসে তিনি তার নিজের মেয়েকে খুন করেন। খবর ভারতীয় গণমাধ্যমের। জানা যায়, ভারতের ঝাড়খণ্ডের রাঁচি শহরের লোহারডাঙার সুমন নেগাসিয়া (২৬) পেশায় শ্রমিক। তিনি পুত্র স’ন্তান লাভের আশায় এক ওঝার সংস্পর্শে আসেন। সেই ওঝা তাকে পরামর্শ দেন, কন্যা সন্তানকে হ’ত্যা করলে তিনি পুত্রস’ন্তানের অধিকারী হবেন। অন্ধ বিশ্বাস করে ওঝার পরামর্শে সে তার আপন মেয়েকে খু’ন করেন। সুমনের স্ত্রী বাপের বাড়িতে থাকায় তাকে বা’ধা দেয়ার মতো কেউ ছিল না।

এই ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে সুমনকে গ্রে’ফতার করেছে। শি’শুটির লা’শ ময়না ত’দন্তের জন্য ম’র্গে পাঠানো হয়েছে বলে প্রতিবেদন থেকে জানা যায়। ওঝাকে ধরতে পুলিশ অ’ভিযান চালাচ্ছে বলেও পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়। ভারতে কুসংস্কার বা অন্ধ বিশ্বাসের কারণে বলি নতুন নয়। এর আগেও এমন ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবেদন বলছে, কিছুদিন আগে ক’রোনা রুখতে এক ব্যক্তিকে বলি দেয়া হয় ওডিশার এক মন্দিরে। কটকের বন্ধা মা বুধা ব্রাহ্মণী দেবী মন্দিরে সানসারি ওঝা নামের এক ব্যক্তি বলি দেয় স্থানীয় এক যুবককে। এরপর নিজেই পুলিশের কাছে গিয়ে নিজের অ’পরাধের স্বীকার করেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, ওই ব্যক্তি স্থানীয় মন্দিরের পূজারী। ক’রোনা সং’ক্র’মণ ঠে’কাতে হলে নরবলি দিতে হবে এই বিশ্বাস থেকেই স্থানীয় সরোজ কুমার প্রধান নামের এক ব্যক্তির গ’লা কে’টে হ’ত্যা করেন।

পুলিশকে অ’ভিযুক্ত জানায়, নরবলি নিয়ে তার ও সরোজের মধ্যে তর্কাতর্কি হওয়ায় ধা’রালো অ’স্ত্র দিয়ে তিনি তাকে হ’ত্যা করেন বলে প্রতিবেদনে জানা যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর