• রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০০ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
শিরোনাম
ব্রেইন টিউমার আক্রান্ত তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী টুম্পাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন! ফেসবুককে রোহিঙ্গাবিরোধী তথ্য দিতে নির্দেশ উখিয়ায় পাহাড়ের মাটি পাচারকালে ডাম্পার সহ আটক ১ বিজিবির অভিযানে সাড়ে ৪ কোটি টাকা মূল্যের ইয়াবা উদ্ধার রাজধানীর প্রতিটি খাল সংরক্ষণ করা হবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী করোনায় আবারও বাড়ল শনাক্ত ও মৃত্যু কক্সবাজারে ২১ কোটি টাকা মূল্যের ইয়াবা নিয়ে আটক ৫ রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক তাদের অবশ্যই ফিরে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের জন্য ১৫৮ মিলিয়ন ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র উখিয়া প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাঃ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

টেকনাফে চাকমারকূল ক্যাম্পে হামলার প্রস্তুতি ; পৃথক অভিযানে অস্ত্র ও রামদাসহ আটক-৬

মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম
আপডেট সময় : বুধবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২১
টেকনাফে চাকমারকূল ক্যাম্পে হামলার প্রস্তুতি ; পৃথক অভিযানে অস্ত্র ও রামদাসহ আটক-৬

টেকনাফে চাকমারকূল ২১নং ক্যাম্পে স্বশস্ত্র হামলার প্রস্তুতির খবর পেয়ে এপিবিএন পুলিশ সদস্যরা পৃথক অভিযান চালিয়ে অস্ত্র, বিপূল পরিমাণ রামদা ও মিয়ানমারের রেজিঃ কার্ডসহ ৬জনকে আটক করেছে।
২০ জানুয়ারী (বুধবার) রাতের প্রথম প্রহরের দিকে টেকনাফের ২১নং চাকমারকূল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আই ব্লকের ৩২০নং ঘরে আমান উল্লাহর বাড়িতে ৮/১০জন স্বশস্ত্র ক্যাম্পে হামলার প্রস্তুতির খবর পেয়ে এপিবিএন পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে বাড়িটি ঘেরাও করে। পরে ঘরটি তল্লাশী করে ১টি পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি,১৯টি বিভিন্ন সাইজের রাম দা,সহ ব্লক-ডি১/৬ এর আবু তাহেরের পুত্র মোঃ ইসমাইল (২২), ব্লক-এ/৫ এর মৃত বদির আহমদের পুত্র মোঃ খায়রুল ওরফে ইসমাইল মাঝি (৩৩), ব্লক-ডি/২ এর ১১৫নং রোমের সাব্বির আহমদের পুত্র মোঃ ছালাম (২২), ব্লক-এ/৭ এর সৈয়দ হোসনের পুত্র মোঃ হারুন (৩১) এবং ব্লক-ডি/৬ এর মৃত দ্বীন মোহাম্মদের পুত্র মোঃ জামাল আহমদ মাঝিকে আটক করে।
অপরদিকে ১৯ জানুয়ারী রাত ৭টারদিকে বহিরাগত পুরান রোহিঙ্গা নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার পূর্ব বাইশারী আলিপাড়ার নজু মিয়ার পুত্র পারভেজকে বেপরোয়া চলাফেরা করার সময় আটক করে। পরে তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর ব্লক-সি/১ এর শফিক আহমদের পুত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আতা উল্লাহর ঘরে অভিযান চালিয়ে ৩০ইঞ্চি লম্বা ১টি রামদা, সেভেন গিয়ার চাকু ১টি, ১টি গুলতি, ২টি মোবাইল সেট, ৯টি এফসিএন কার্ড, মায়ানমারের রেজিঃ কার্ডের ফটোকপি ১৩টি উদ্ধার করা হয়।
এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ধারার পৃথক আইনে মামলা দায়েরের পর উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্রাদি,মালামালসহ ধৃতদের টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করে পলাতক আসামীদের আটকের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে ১৬ এপিবিএন পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি মোঃ তারিকুল ইসলাম তারিক নিশ্চিত করেন। #


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর