• রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কাবুলের কারাগার থেকে পালালেন ৩ বাংলাদেশি

রিপোর্টার নাম :
আপডেট সময় : সোমবার, ১৬ আগস্ট, ২০২১
3237f04deed636b8976f9e52c3e8956e3e3ee565032dec0a

প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির দেশত্যাগ ও রাজধানী কাবুল অধিকার করে নেওয়ার পর আফগানিস্তানে চলমান যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করেছে তালেবান। এরইমধ্যে সেখানকার কারাগারের দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে। আর এই সুযোগে কারাগার থেকে পালিয়ে গেছেন তিন বাংলাদেশি কারাবন্দী।
কাবুলের কারাগার থেকে পালালেন ৩ বাংলাদেশী।

উজবেকিস্তানে বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র ওই তিন বাংলাদেশির কারাগার থেকে বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

তারা হলেন- খুলনার দৌলতপুর উপজেলার মঈন আল মেজবাহ, রাজধানীর মিরপুরের কাওসার সুলতানা ও ফেনীর ফুলগাজীর উবাইদুল্লাহ হারুন।

তাদের  অপরাধ সম্পর্কে একাধিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। কেউ বলছেন, তারা অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। আবার কেউ বলছেন, ওই তিনজনসহ মোট চার বাংলাদেশিকে তালেবানকে সহায়তার অভিযোগে কয়েক বছর আগে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।

উজবেকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, কারাগার থেকে বেরিয়ে যাওয়া মঈন আল মেজবাহ দূতাবাসে যোগাযোগ করলে তাকে নিরাপদে থাকতে বলা হয়েছে। দূতাবাস তাকে বাংলাদেশে ফিরে যাওয়ার ব্যবস্থা করবে বলেও জানিয়ে দিয়েছে।

সেখানে বসবাসকারী অন্য বাংলাদেশিদের সম্পর্কে তিনি জানান, যেহেতু আফগানিস্তানে বাংলাদেশের মিশন নেই, তাই পুরো দেশের তথ্য জানা নেই। আপাতত কাবুলে থাকা বাংলাদেশিদের খবর পাওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত কোনো বাংলাদেশির হতাহত বা সংকটে পড়ার খবর পাওয়া যায়নি।

রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, বাংলাদেশের কোনো নাগরিক দেশটির অন্য কোথাও আছেন কি না, তা জানাতে আফগানিস্তানকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ করা হয়েছে। আফগানিস্তানে কোনো বাংলাদেশি যদি থেকে থাকেন, তাদের সহায়তার জন্য দুটি হটলাইন (+৯৯৮৯৭৪৪০২২০১ ও +৯৯৮৯০৩২৭৫১৫২) খোলা হয়েছে।

এদিকে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক জানিয়েছে, আফগানিস্তানে ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনালের ৬ কর্মকর্তাকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে। এর আগে গত শুক্রবার তিনজনকে ফেরানো হয়। সেখানে তাদের সর্বশেষ ৯ বাংলাদেশি কর্মকর্তা কর্মরত ছিলেন।

এদিকে, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানায়, কাবুলে ঢুকে পড়ে প্রেসিডেন্ট ভবনের দখল নিয়েছে তালেবানরা তারা অতিদ্রুত আফগানিস্তানের নতুন সরকার সম্পর্কে সবকিছু পরিষ্কার করে জানাবে।

মোহাম্মদ নায়েম বলেন, আমরা যেখানে পৌঁছাতে চেয়েছিলাম সেখানে পৌঁছেছি। আমরা মানুষের জন্য স্বাধীনতা এনেছি। আমরা কারো ক্ষতি করতে চাই না এবং অন্য কাউকে আমাদের ভূমি ব্যবহার করে কারো ক্ষতি করতে দিতে চাই না।

এর আগে রোববার (১৫ আগস্ট) বিকেলে কাতারের দোহায় অবস্থানরত তালেবান মুখপাত্র সুহায়েল শাহীন বলেন, ‘আফগানিস্তানে যারা এর আগে আগ্রাসীদের জন্য কাজ করেছে, সাহায্য করেছে বা এখন যারা দুর্নীতিবাজ কাবুল প্রশাসনের বিভিন্ন পদে আসীন রয়েছেন তাদের সবার জন্য ইসলামিক আমিরাত দরজা খোলা রেখেছে এবং ক্ষমা ঘোষণা করেছে। আমরা আরেকবার তাদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছি, যেন তারা দেশ ও জাতির জন্য কাজ করতে এগিয়ে আসেন।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর